Home / Blog / হিন্দির জন্য বাংলা মার খাচ্ছে?

হিন্দির জন্য বাংলা মার খাচ্ছে?

হিন্দির জন্য বাংলা মার খাচ্ছে?
আপনি নিজেই ভেবে দেখুন , একবার ভাবুন যে আপনার প্রিয় মুভি গুলোর মধ্যে কয়টা বাংলা আছে কয়টা হিন্দি মুভি আছে।
একবার নিজে নিজেই জিজ্ঞেস করুন গত এক মাসে টেলিভিশনে বসে কয়টা বাংলা প্রোগ্রাম দেখেছেন আর কয়টা হিন্দি প্রোগ্রাম দেখেছেন ।
মনে করে দেখুন সিনেমা হল বা থিয়েটার কয়টা বাংলা আর কয়টা হিন্দি মুভি দেখেছেন ।

একবার খোঁজ নিয়ে দেখুন হিন্দি ভাষার বই হল কি পরিমাণ বিক্রি হচ্ছে বাংলা ভাষার বই গুলো কি পরিমাণ বিক্রি হচ্ছে ।
ইন্টারনেটে সার্চ করে দেখুন, দেখবেন ইউটিউবে হিন্দি গান গুলোর ভিউ বাংলা গান গুলোর চেয়ে অনেক অনেক বেশি ।
একটা ছোট উদাহরণ দিয়ে শুরু করি, আমার নিজের কথাই বলি
বাংলায় আমি আগে বলতাম “কেননা” কিন্তু আজকাল প্রায়ই দেখা যাচ্ছে কেননা শব্দের পরিবর্তে আমি ব্যবহার করছি “কেন কি” ভেবে দেখলাম এই কেন কি শব্দ যুগল আসলো হিন্দি কিউকি শব্দ থেকে। মানে হিন্দির কিউকি টা বাংলায় বঙ্গানুবাদ করে কেনো কি হয়ে গেল! এমন নয় যে বাংলা ভাষায় এই অনুভূতিটা প্রকাশ করার জন্য কোন শব্দ নেই। প্রচুর শব্দ আছে বাংলা ভাষায়, সব অনুভূতিকে প্রকাশ করার জন্য। সুতরাং হিন্দি থেকে অনুবাদ করে কিউ কি বা কেন কি বলার কোন প্রয়োজনই ছিল না

শুধু আমি না আমার আশেপাশে অনেক বন্ধুরাই আজকাল কেন কি শব্দ টা খুবই ব্যবহার করে। এটার কারণ হলো চিন্তা করার সময় আমরা হিন্দিতে চিন্তা করতে শুরু করেছি! বাংলায় যদি চিন্তা করতাম তাহলে কেননা শব্দটাই আমাদের মুখ দিয়ে বের হতো। অথবা হতে পারে বারবার আমরা টেলিভিশন, ল্যাপটপ, মোবাইলে হিন্দিতে কিউ কি শব্দ শুনতে শুনতে আমাদের মুখ দিয়ে ও সচরাচর ভাবে কেন কি শব্দ টা বেরিয়ে যাচ্ছে অথচ বাংলা ভাষায় কেন কি এটা খুব সুন্দর একটা অর্থ হয় না।
তো বাংলা ভাষা যে হিন্দি ভাষার জন্য মার খাচ্ছে সেটার অনেকগুলো কারণ আছে। প্রথমেই বলতে হবে আজকাল প্রযুক্তির যুগে, ইউটিউব এর যুগে, ফেসবুক এবং বিশ্বায়নের যুগে বাংলা ভাষাভাষী মানুষ রা প্রচুর পরিমাণে হিন্দি মুভি, হিন্দি গান, হিন্দি টিভি শো দেখতে শুরু করেছে। দেখবে অবশ্যই। কারণ এখানে খুব প্রতিভাবান এবং আকর্ষণীয় জিনিস গুলো দেখতে পাওয়া যায়,সৃজনশীল জিনিস গুলো পাওয়া যায়। অথচ বাংলা ভাষায় যে প্রোগ্রামগুলো টেলিভিশনে দেখানো হচ্ছে বা মুভি গুলো বেরোচ্ছে সেগুলোর সৃজনশীলতা হিন্দির ভাষায় চেয়ে কম। অথবা সৃজনশীল হলেও পর্যাপ্ত পরিমাণে নয়।

আপনি নিজেই ভেবে দেখুন , একবার ভাবুন যে আপনার প্রিয় মুভি গুলোর মধ্যে কয়টা বাংলা আছে কয়টা হিন্দি মুভি আছে।
একবার নিজে নিজেই জিজ্ঞেস করুন গত এক মাসে টেলিভিশনে বসে কয়টা বাংলা প্রোগ্রাম দেখেছেন আর কয়টা হিন্দি প্রোগ্রাম দেখেছেন
মনে করে দেখুন সিনেমা হল বা থিয়েটার কয়টা বাংলা আর কয়টা হিন্দি মুভি দেখেছেন
একবার খোঁজ নিয়ে দেখুন হিন্দি ভাষার বই হল কি পরিমাণ বিক্রি হচ্ছে বাংলা ভাষার বই গুলো কি পরিমাণ বিক্রি হচ্ছে
ইন্টারনেটে সার্চ করে দেখুন, দেখবেন ইউটিউবে হিন্দি গান গুলোর ভিউ বাংলা গান গুলোর চেয়ে অনেক অনেক বেশি
এসব ছোট ছোট কারণে বাংলা ভাষাভাষী মানুষ রা একটু বেশি বেশি পরিমাণেই হিন্দি মুভি গান এগুলোর প্রতি আকৃষ্ট হচ্ছে। এমনকি আজকাল প্রতি ঘরে ঘরে ছোট ছোট বাচ্চারা সিনচেন দেখে (একটা কার্টুন) আমি আমার অনেক আত্মীয়স্বজনের বাসায় প্রতিবেশীর বাসায় দেখেছি ছোট ছোট বাচ্চারা বেশ ভালো হিন্দি কথা বলতে পারে এটার মানে তারা হিন্দিতে চিন্তাও করছে কিন্তু তারা অতটা ভালো বাংলা বলতে পারেনা আমি এটা বলছি না যে হিন্দি ভাষা শেখা ঠিক বা বেঠিক কিন্তু প্রথমে তো বাংলা ভাষাটাকে ভালোভাবে আয়ত্ত করতে হবে একটু খেয়াল করলেই দেখবেন আজকাল অনলাইন শপিং গুলো খুব জনপ্রিয় হয়ে উঠছে পুরো ভারতবর্ষে এইযে আমাজন ডট কম flipkart.com এগুলোতে বাংলা ভাষায় বই খুব একটা কম অথচ হিন্দিতে বই অনেক বেশি বিক্রি হচ্ছে এবং চাহিদা বেশি হওয়ায় তার আজও যোগান ও বাড়িয়ে দিয়েছে। খেয়াল করে দেখবেন, বাংলাদেশ -যেখানে বাংলা প্রধান ভাষা। আজকাল প্রতিটা বিয়ের অনুষ্ঠানে জন্মদিনের অনুষ্ঠানে হিন্দির ডিজে গান গুলো বাজানো হয়। গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে বাজানো হয়।

ইদানিংকালে, বিয়ের যেই ভিডিওগুলো হয় সিনেমাটোগ্রাফি প্রায় সবগুলোতেই প্রচুর হিন্দি গান ব্যবহার করা হচ্ছে। কেন??
অর্থাৎ বাংলা ভাষা মার খাওয়ার জন্য প্রথম কারণটা আমি বলছি যে, বাংলা ভাষায় সৃজনশীল জিনিসগুলো কম তৈরি হচ্ছে এবং আমরা করছি না। (হিন্দির তুলনায়)
আপনি হয়তো ভাবতে পারেন তাহলে তো ইংরেজিতে অনেক বেশি বেশি সৃজনশীল জিনিস গুলো আছে, ইংরেজি কেন আমরা কথায় কথায় বলছি না, হ্যাঁ আমরা অবশ্যই ইংরেজি শব্দগুলো ও এখন বলে ফেলি। কিন্তু বাংলা এবং হিন্দি এই দুটো ভাষার উৎপত্তি সংস্কৃত হওয়ার কারণে অনেক অনেক বেশি বেশি শব্দ মিল আছে। ফলে হিন্দি এবং উর্দু এই দুটো ভাষা বাংলা ভাষাভাষী মানুষদের বুঝতে কম সময় লাগে।
এইটা শুধু বাংলাদেশের সমস্যা তাও নয় এটা পুরো পশ্চিমবঙ্গ, ত্রিপুরা, আসাম… মানে যেখানে বাংলায় কথা বলছে, বাঙালি দের সমস্যা।
দ্বিতীয় কারণ হচ্ছে হতে পারে প্রচার।
হিন্দিতে যখন একটা বই প্রকাশিত হয় সেটা প্রচুর বিজ্ঞাপন হয়, প্রচুর প্রচার হয়।
হিন্দি তে যখন কোনো গান হয় সেটা বিজ্ঞাপন অনেক বেশি হয়, যখন একটা মুভি বানায় প্রচুর বিজ্ঞাপন তারা দেয়।
কিন্তু বাংলায় যে জিনিসগুলো আমরা সৃষ্টি করছি সেগুলো প্রচার এর জন্য আমরা কোনো উদ্যোগ নিচ্ছি না। মানে সোজা কোথায় প্রচারে প্রসার জিনিসটা হচ্ছে না।
এসব কারণে বাংলা ভাষার উপর হিন্দি ভাষার প্রভাব টা দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে
লিখাটি ক্যুরা থেকে নেওয়া লিখেছেন, (Sagar Sharma)